মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:০৯ পূর্বাহ্ন

করোনায় বাসা ভাড়া মওকুফ চায় জবি শিক্ষার্থীরা

জবি প্রতিনিধি

বাংলাদেশের প্রথম সারির একটি অন্যতম বিশ্ববিদ্যালয় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি)। কিছু সুবিধা থাকলেও সেখানে শিক্ষার্থীদের জন্য নেই আবাসিক হল। মেয়েদের জন্য একটি হলের কাজ চললেও সেটির কাজ এখনো শেষ হয়নি।থাকার জন্য হল না থাকায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় বেশিরভাগ শিক্ষার্থীকে থাকতে হয় ভাড়া বাসায়। প্রতিটি শিক্ষার্থীর বাসা ভাড়া গড়ে ১৬০০-২৫০০ হয়ে থাকে। একমাত্র অনাবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ায় বাড়িওয়ালার নানা কড়া নিয়ম-কানুনের মধ্যে দিয়ে বাসায় থাকতে হয় শিক্ষার্থীদের।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশিরভাগ ছেলে-মেয়েরা কোচিং-টিউশনি করে তাদের খরচ ব্যায় বহন করে থাকে। কিন্তু কোভিড-১৯ এর মহামারীর ফলে থমকে গেছে তাদের স্বাভাবিক উপার্জন। এই সময়ে সব কিছু বন্ধ তাই শিক্ষার্থীদের অনেকের আয়-উপার্জন বন্ধ। কিন্ত মাস শেষ হতে না হতে বাসার মালিককে দিতে হবে বাসা ভাড়া সে চিন্তা আছে অনেক শিক্ষার্থীর মাঝে। তাই করোনার সময়ে বাসা ভাড়া মওকুফ করার দাবি তুলেছেন অনেক শিক্ষার্থী।

এই বিষয়ে বিজয় নামের এক শিক্ষার্থী বলেন,”নিজের টাকায় নিজেকে চলতে হয় কোচিং টিউশন করে। এখন এসব বন্ধ কিভাবে নিজে চলব? কিভাবে বাসা ভাড়া দিব।প্রশাসন বাসা ভাড়া মওকুফ করার ব্যাবস্থা করলে অনেক উপকার হবে”। মোহন আলী নামের এক শিক্ষার্থী বলেন,”বেশিরভাগ শিক্ষার্থী টিউশনি করে নিজের খরচ বহন করে,কিন্ত এমন সময়ে সব কিছু বন্ধ।কি করে বাসা ভাড়া দিব সেটা ভাবতে পারছিনা একজন তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেন,”বাসা ভাড়া মওকুফ এর ব্যাপারটি জবি প্রশাসনের দেখা দরকার। অনেক শিক্ষার্থীর উপকার হবে।

এ ব্যাপারে জবি প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন,”এ ব্যাপারে আমি অনেকের সাথে কথা বলেছি। এ সময়ে আসলে শিক্ষার্থীদের বাসা ভাড়া মওকুফ করা উচিৎ। ব্যাপারটি ভেবে দেখা হবে।যতটুকু পারি সাহায্য করব।”


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ