মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০২:৪৪ অপরাহ্ন

কৌশল অবলম্বন করেও রক্ষা পেলনা অবৈধ বালু উত্তোলনকারী

মোঃ মামুনুর রশিদ, নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে অবৈধভাবে বেশ কয়েকটি স্থানে বালু উত্তোলন করে আসছিল একটি চক্র। বালু উত্তোলনের কারনে নদী, কৃষি জমি ও গ্রামীণ কাঁচা রাস্তা ঘাটের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছিল।

সম্প্রতি উপজেলা প্রশাসনের কঠোর নজরদারীতে বন্ধ হয়ে যায় বালু পয়েন্ট গুলি। প্রশাসনের এমন তৎপরতায় নতুন কৌশল অবলম্বন করেন ঐ চক্রটি। নবাবগঞ্জ উপজেলায় বালু উত্তোলন না করে নবাবগঞ্জের সীমান্তবর্তী এলাকা রংপুরের পীরগঞ্জ এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে এবং নবাবগঞ্জ উপজেলার মহারাজপুর এলাকায় এই বালু জমা করে তা বিক্রি করছিল চক্রটি।

পরে প্রশাসনের নজরে বিষয়টি আসলে বুধবার বিকালে জেলা প্রশাসকের দিক নিদের্শনায় উপজেলা নিবার্হী অফিসার ও নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রে মোছাঃ নাজমুন নাহারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান অভিযান চালান বালু মজুত স্থানে। এসময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ আল মামুন উপস্থিত ছিলেন। ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান টের পেয়ে পালিয়ে যায় চক্রটি। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বালু উত্তোলনের স্থান থেকে ২টি মটরসাইকেল, একটি বালু বহনকারী গাড়ী জব্দ করে। এ সময় বালু উত্তোলন করার কাজে নিয়োজিত মেশিন পানিতে ফেলে দেওয়া হয়।

উপজেলা নিবার্হী অফিসার বলেন- বালু উত্তোলকারীরা কৌশলে নবাবগঞ্জ শেষ সীমান্ত রংপুরের পীরগঞ্জ এলাকায় বালু উত্তোলন করে তা নবাবগঞ্জ উপজেলার গ্রামীণ রাস্তাগুলি দিয়ে বালু বহন করায় রাস্তাঘাটের ক্ষতি হচ্ছে। উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূ’মি) আল মামুন বলেন বৃহস্পতিবার সকালে ভ্রাম্যমান আদালতে জব্দ কৃত বালু বহনকারী ট্রাক্টার মালিকের ১৫ হাজার ও মোটরসাইকেল মালিকের ১৫ হাজার মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ