শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০১:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রপ্তানি আয়ের অন্যতম উৎস হবে আম: কৃষিমন্ত্রী খাবার না থাকলে আমাকে জানান, আমি বাড়ি বাড়ি খাবার পৌছে দিব: এমপি আনার অমুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনের অভিযোগ স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কমলগঞ্জে হিন্দু ছাত্র পরিষদের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ময়মন‌সিং‌হের শম্ভুগ‌ঞ্জে প্রায় শতা‌ধিক দোকানে ধর্মঘট শেরপুরের শ্রীবরদীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার সাংসদ কন্যা ডরিন এর নেতৃত্বে রোজা রেখেও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এক কৃষকের ধান কেটে দিয়েছে ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ করোনা সঙ্কটে আবারো অসহায় মানুষের পাশে সাংসদ কন্যা ডরিন সাভারে দুই নারী ধর্ষণের শিকার, আটক ২ ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে তিস্তায় ডুবে একজনের মৃত্যু

খুলনায় করোনায় আক্রান্ত ২৯

তুহিন আহমেদ, খুলনা

সারাদেশ লাফিয়ে বাড়ছে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা। মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। তবে পরিসংখ্যান বলছে, খুলনায় যে হারে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তাতে ঢাকার নারায়ানগঞ্জের দিকেই হাটছে।

গত ২৪ ঘন্টায় খুলনায় ৪ জন চিকিৎসক, ১জন পুলিশ সদস্য ও ১ জন কারারক্ষীসহ মোটা ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

যার মধ্যে খুলনা জেলার ২৭ জন রয়েছেন। এছাড়া বাগেরহাট ও পিরোজপুর জেলার একজন করে রয়েছেন। আজ শনিবার রাতে তাদের নমুনা পরীক্ষার পর এ তথ্য পাওয়া গেছে। এটি খুলনায় একদিনে শনাক্ত হওয়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এর আগে গত বৃহস্পতিবার একদিনে সর্বোচ্চ ৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়, যার মধ্যে ৩০ জনই খুলনার ছিলেন।

খুলনা মেডিকেল কলেজের (খুমেক) উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ বলেন, শনিবার খুমেকের পিসিআর মেশিনে মোট ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যার মধ্যে খুলনা জেলার নমুনা ছিলো ১৬৭টি। এদের মধ্যে একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। যার মধ্যে ২৭ জনই খুলনার জেলার। বাকি দুইজন বাগেরহাট ও পিরোজপুর জেলার।

তিনি আরও জানান, খুলনায় আক্রান্তদের মধ্যে ২৫ জনই মহানগরীর বাসিন্দা, দুইজন রূপসা উপজেলার উপজেলার। মহানগরীতে আক্রান্তদের মধ্যে বিভিন্ন এলাকার নানা পেশার মানুষ রয়েছেন। বিশেষ করে চারজন চিকিৎসক, একজন পুলিশ সদস্য, একজন কারারক্ষী, স্বামী-স্ত্রী, শিক্ষার্থী, সরকারি-বেসরকারি চাকরীজীবীও আক্রান্ত হয়েছেন।

ডা. মেহেদী নেওয়াজ আরো জানান, খুলনায় নতুন শনাক্ত হওয়া ২৭ জনের মধ্যে রয়েছেন- খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক দম্পতি, যাদের বয়স ৪২ ও ৩৮ বছর, খানজাহান আলী রোডের ২৫ বছরের একজন তরুণী চিকিৎসক, সোনাডাঙ্গা এলাকার একজন চিকিৎসক (৪৮), খুলনা জেলা কারাগারের একজন (২৬), সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকার ২য় ফেজের ৩৪ বছরের এক ব্যক্তি, যিনি এনজিওতে কর্মরত, নগরীর দোলখোলা রোডের ৪৫ বছরের এক ব্যক্তি, জেলা প্রশাসনের একজন চাকুরীজীবী (৫০), রূপসার মরিয়মপাড়া এলাকার ৫৬ বছরের এক ব্যক্তি, নগরীর জোড়াগেট পুলিশ কোয়ার্টারের একজন (৫০), যিনি পুলিশে কর্মরত, নগরীর নূরনগর বয়রা এলাকার স্বামী (৩৮) ও স্ত্রী (৩৪), সোনাডাঙ্গা আবাসিকের ৩৫ বছরের এক ব্যক্তি, জিরোপয়েন্ট এলাকার ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, কেডিএ এ্যাপ্রোচ রোডের ২০ বছরের তরুণী, গোবরচাকা মেইন রোডের ৪১ বছরের এক ব্যক্তি, খালিশপুর ১১নং রোডের ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, রূপসার রাজাপুরের ৩০ বছরের এক যুবক, খালিশপুর পিপলস কলোনীর ২৫ বছরের এক নারী, হরিণটানা থানাধীন মোহাম্মদ নগরের ৫৫ বছরের এক ব্যক্তি, খালিশপুর হাউজিং স্টেটের ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, বয়রা ভাঙ্গাপোলের ৫০ বছরের এক ব্যক্তি, দক্ষিণ টুটপাড়ার ৫৫ বছরের এক ব্যক্তি, ১৯ চারাবাটি বয়রা মেইন রোডের ২৫ বছরের যুবক, রূপসার যুগিহাটী এলাকার ২৮ বছরের এক যুবক, খালিশপুর ১১নং রোডের ৫৭ বছরের এক ব্যক্তি, আহসান আহমেদ রোডের ১৬ বছরের এক ছাত্রী। এছাড়া খুমেকের ল্যাবে বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার সোনারকোলা এলাকার ৫৫ বছরের এক ব্যক্তি ও পিরোজপুরের সদর উপজেলার ৫১ বছরের এক ব্যক্তির করোনা শনাক্ত হয়েছে।

খুলনার সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ বলেন, খুলনায় এখন পর্যন্ত মোট ১৮০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে ৪ জন মারা গেছেন। আর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩৬ জন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ

Spoken English কোর্স