বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০২:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মাগুরায় ৮ দিন পর যুবকের মস্তকবিহীন লাশের মাথা ও পা উদ্ধার গাজীপুরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্কুল কলেজ খোলার জন্য মানববন্ধন। মাগুরায় পরিত্যক্ত পুকুরে মিললো যুবকের টুকরো টুকরো লাশ বশেমুরবিপ্রবিতে শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ, স্বেচ্ছায় অব্যহতি গাজীপুরে ভোগরা বাইপাসে স্ট্রোকে আম বিক্রেতার মৃত্যু গাজীপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় গার্মেন্টস শ্রমিকের মৃত্যু শেরপুরে নকল সোনার বারসহ ২ প্রতারক গ্রেফতার কাল থেকে ৭ দিনের জন্য কঠোর লকডাউন চাঁপাইনবাবগঞ্জে শরনখোলায় লোকালয় থেকে মৃত হরিন উদ্ধার! উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি/সম্পাদকের ১৯ তম মৃত্যু বার্ষীকি পালন করেন এমপি সবুজ

চৌগাছায় হতদরিদ্র পরিবারের পাশে দুই সহোদর

শামীম রেজা, চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি

কোভিড-১৯ যা করোনা ভাইরাস নামে পরিচিতি। সাম্প্রতিক সময়ে সারা বিশ্বের প্রায় ২০০টি দেশে এর বিস্তার লাভ করেছে। আক্রান্ত হয়েছে বহু মানুষ। সারা বিশ্বের মানুষ আতংকিত। বাংলাদেশে বর্তমানে ৪৮ জন রোগী সনাক্ত হয়েছে। এমন খবর দেশে ছড়িয়ে যাবার পর থেকে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

যে কোনো সময় যে কোনো বয়সের মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে। তবে শহরাঞ্চলের দরিদ্র শিশুদের ক্ষেত্রে এই ভাইরাসের পরোক্ষ প্রভাব রয়েছে। বিদ্যালয়, কোচিং ও প্রাইভেট সেন্টার, খেলার মাঠ সব বন্ধই জানান দেই যে এর প্রভাব কতটুকু।

এই সংকটময় মুর্হূতে হত দরিদ্র শিশুদের পরিবারের পাশে এসে দাড়িয়েছেন অন্তু ইয়ামিম ও ঊষান তামিম নামে দুইজন শিশু। শুক্রবার সকাল থেকে হত দরিদ্র বাবা-মার হাতে ২ কেজি চাউল, ১ কেজি আলু, আধা কেজি ডাল, আধা লিটার তেল, ১’টি সাবান, ১’শ গ্রাম কালোজিরা তুলে দিচ্ছেন দুই সহোদর। এই পর্যন্ত ১’শ পরিবারের মাঝে তারা খাবার তুলে দিয়েছেন। তাদের এই মহোতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সুশীল সমাজ।

অন্তু ইয়ামিম ও ঊষান তামিম উপজেলার আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও তরুণ সমাজসেবক জসিম উদ্দিনের ছেলে।

অন্তু ইয়ামিম ও ঊষান অপরাধ ডট কমকে জানান, বর্তমান সরকার আমাদের দেশকে লকডাউন ঘোষণা করেছে। ফলে নি¤œ আয়ের মানুষ বাইরে বের হতে পারছেনা। যারা দিন আনে দিন খায় তারা তাদের ছেলে-মেয়েদের মুখে খাবার তুলে দিতে হিমসিম খাচ্ছে। চরম মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা।

আমাদের মত অনেক শিশুই আছে যারা দু’বেলা দুমুঠো খাবার খেতে পারছেনা। তাদের মুখে হাসি ফোটানোর সামান্য প্রয়াস মাত্র। তাদের এই সংকটময় মূহুর্তে তাদের পাশে দাঁড়াতে পারায় তারা আনন্দিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ

Spoken English কোর্স