সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
খালিয়াজুরীতে ৪০ লিটার মদ জব্দ, নারীসহ আটক ২ বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে মিয়ানমার আন্তরিক নয়: পররাষ্ট্র সচিব নান্দাইলে সরকারী ভাতা পেতে ২৪ হাজার প্রার্থীর আবেদন শিবগঞ্জে রাস্তার বেহাল অবস্থা শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিনে সাভারে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তি প্রদান নওগাঁয় বেড়িবাঁধ দখল করে ভবন নির্মানের অভিযোগ খুলনায় গ্রিন বেল্টে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর বৃক্ষরোপন ময়মনসিংহে জেএমবির ৪ সদস্য গ্রেফতার জামালপুরে রিকশা চালক রাসেল হত্যা মামলায় ২ সহোদরের মৃত্যুদণ্ড, ৭ জনের যাবজ্জীবন ন্যায্য পাওনা পরিশোধের দাবীতে জামালপুরে সম্মিলিত ব্যবসায়ী জনতা ঐক্য পরিষদের মানববন্ধন

ছাদ থেকে ফেলে হত্যার চেষ্টা!

রুহুল আমীন, মানিকগঞ্জ

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার জয়মন্টব ইউনিয়নে হাসিনা বেগম(২২) নামে এক গৃহবধুকে ধাক্কা দিয়ে ছাদ থেকে ফেলা হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

রবিবার(১৫ মার্চ) সকাল ৭ টার দিকে জেলার সিংগাইর উপজেলার জয়মন্টব ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।এতে গুরুতর আহত হয় হাসিনা বেগম।

আহত হাসিনা বেগম মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার জয়মন্টব ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের মোঃ আবুল হোসেনের মেয়ে।

স্থানীয় সুত্রে জনা য়ায়,এক বছর আগে একই গ্রামের আপন ফুফাতো ভাই মোঃজয়নাল আবেদীন(৩৩) এর সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় হাসিনা বেগমের।সেই বিয়েতে হাসিনার শাশুরী জহুরা বেগম (৫০) রাজি না থাকায়,বিয়ের পর শুরু হয় নির্যাতন।সেই নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে হাসিনা বাবার বাড়িতে চলে য়ান।প্রায় আড়াই মাস আগে।পরে স্থানীয় মাতাব্বরদের আলোচনার মাধ্যোমে হাসিনা আবার তার স্বামীর বাড়িতে চলে যান।কিন্তু তারপরও থেমে থাকে না তার শাশুরীর অমানবিক নির্যাতন।রবিবার সকল সাতটার দিকে শাশুরী জহুরা বেগম বিল্ডিংএর ছাদে গেলে পেছনে গৃহবধু হাসিনাও ছাদে যায়।হঠাৎ হাসিনাকে তার শাশুরী দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে ছাদ থেকে ফেলে দেয়।ছাদ থেকে পরে গুরুতর আহত হন হাসিনা বেগম।পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে তার বাবার বাড়িতে নিয়ে যান।সেখান থেকে তাকে সিংগাইর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভার্তি করেণ।কিন্তু অবস্তা খারাপ দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক হাসিনাকে ঢাকা পুঙ্গু হাসপাতালে পাঠান।

হাসিনা স্বামী জয়নাল আবেদীন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,আমার মা অসুস্থ্য,সে কিভাবে তাকে ছাদ থেকে ফেলে দিবে।তবে আমি বাড়িতে ছিলাম না।ঘটনার কাথা শুনে আমি আমার স্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে যাই,আমার নামে মামলা করার কথা শুনে আমি হাসপাতাল থেকে চলে আসি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ