বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে “মশা নিয়ন্ত্রণে সচেতনতামূলক” সভা অনুষ্ঠিত

মোঃ সামিউল্লাহ, ঢাকা প্রতিনিধি

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উদ্যোগে এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার (সিডিসি) সহযোগিতায় ডিএনসিসির ৭ নম্বর অঞ্চলের অধীন দক্ষিণখানের কে সি হাসপাতাল কনভেনশন সেন্টারে এডিস ও কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণে এক সচেতনতামূলক অ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য মশা নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির প্রতিটি অঞ্চলে পর্যায়ক্রমে অ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে আজ অঞ্চল ৭-এ এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মূলত এ অঞ্চলের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে অবহিতকরণের মাধ্যমে এডিস মশা এবং ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধ কার্যক্রমে সকলের অংশগ্রহণের উদ্দেশে এ সভার আয়োজন করা হয়। সভার শুরুতে এডিস মশার উৎপত্তিস্থল, বংশবিস্তার, রোগ-জীবাণু বহন, মানুষকে আক্রান্ত করাসহ বিশ্বে ডেঙ্গু রোগের সামগ্রিক চিত্র ও তথ্য-উপাত্ত নিয়ে একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন সিডিসি এর ফিল্ড মনিটরিং অফিসার ডা. আবুল কালাম এবং এন্টামোলোজিকেল সার্ভিলেন্স এক্সপার্ট জান্নাতুল ফেরদৌস। এতে দেখানো হয়, “১২৬টি দেশে ইতিমধ্যে ডেঙ্গু জ্বর ছড়িয়ে পড়েছে। এর ফলে ২৫০ কোটির অধিক মানুষ, অর্থ্যাৎ পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার প্রায় ৪০ শতাংশ মানুষ ডেঙ্গুর ঝুঁকিতে রয়েছে।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ১১টি দেশের মধ্যে ১০টি দেশেই ডেঙ্গুর প্রকোপ রয়েছে, এসব দেশে প্রায় ৫২ শতাংশ মানুষ ডেঙ্গুর ঝুঁকিতে রয়েছে”। সিডিসির এ উপস্থাপনায় আরো বলা হয়, “গত আগস্ট মাসে দেশে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ছিল সর্বোচ্চ। সারা দেশে এ এক মাসেই প্রায় ৫৩ হাজার রোগী ভর্তির রেকর্ড করা হয়, যার অধিকাংশই ছিলো রাজধানীতে। জুলাই, আগস্ট ও সেপ্টেম্বর এ তিন মাসে ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাব সর্বাধিক ছিলো এবং ধারণা করা হচ্ছে, এবছরও একই সময়ে এ রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়তে পারে”।

তিনি আরো বলেন, “২০২০ সাল বিভিন্নভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে এ বছরকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে ‘মুজিববর্ষ’ ঘোষণা করা হয়েছে। মানুষ যাতে এডিস মশার উপদ্রব ছাড়াই বছরব্যাপী এ উৎসব নির্বিঘ্নে উদযাপন করতে পারে সেজন্য আমরা নিরলস কাজ করে যাচ্ছি”।

ডিএনসিসির অঞ্চল ৭ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল কুদ্দুস এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় অন্যান্যের মধ্যে অঞ্চল ১ আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা জুলকার নায়ন ও অঞ্চল ৮ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা আবেদ আলী, ৪৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোতালেব মিয়া, ৫০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ডি এম শামীম, সংরক্ষিত ওয়ার্ড নম্বর ১৬ এর কাউন্সিলর ইলোরা পারভীন, দক্ষিণখান ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, মসজিদের ইমামগণ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ, স্কাউট সদস্যবৃন্দ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ