বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৫:০৪ অপরাহ্ন

তাহিরপুরে অজ্ঞাত বৃদ্ধার ঠিকানা খুঁজছে এলাকাবাসী

টাইফুন মিয়া, তাহিরপুর

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় নাম-পরিচয়হীন এক বৃদ্ধার ঠিকানা খুঁজছে এলাকাবাসী।

জানা যায়, এই অজ্ঞাত বৃদ্ধার বয়স আনুমানিক ৭৫ বছর। গত মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এই বৃদ্ধ মহিলাটি উপজেলার ৪নং বড়দল (উঃ) ইউনিয়নের পুরানঘাট গ্রামে প্রবেশ করেন।

অপরিচিত বৃদ্ধাকে দেখে গ্রামের ছোট ছেলেমেয়েরা জড়ো হয়ে বৃদ্ধ মহিলাকে ‘পাগলী’ ‘পাগলী’ বলে ঢিল ছুঁড়ছিলো। এক পর্যায়ে বৃদ্ধ মহিলাটি কাঁদায় পড়ে যায়।

এমন দৃশ্য দেখে পুরানঘাট গ্রামের মোহাম্মদ নিয়ামত উল্লাহ’র ছোট ভাই ইকরাম হোসেন (১৫) নামে এক স্কুল পড়ুয়া ছেলের কোমল হৃদয় কেঁপে উঠলো। অসহায় বৃদ্ধাকে দেখে মায়া লাগলো। তৎক্ষণাৎ বৃদ্ধ মহিলাটিকে রাস্তা থেকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে গেলো।

সেখানে ছেলেটির পরিবার এই অসহায় বৃদ্ধাকে মানবিক বিবেচনায় আশ্রয় দিলো, খাওয়া দাওয়াসহ যথাযথ সেবা যত্ন করলো।এদিকে রাত ১১টার দিকে মোহাম্মদ নিয়ামত উল্লাহ বাড়িতে আসলে বৃদ্ধা মহিলাকে দেখে তাঁর পরিচয় জানতে চাইলে তিনি কিছুই বললেন না।

পরদিন সকালে নিয়ামত উল্লাহ অজ্ঞাত বৃদ্ধার দেউলিয়া হওয়ার বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও সংবাদকর্মীদের অবহিত করেন। বৃদ্ধাকে তাঁর আপন ঠিকানায় পৌঁছে দিতে নিয়ামত উল্লাহ ও ইমরাজুল হক মিরাজ নামে দুই যুবক গ্রামে গ্রামে মানুষকে জানান দিতে শুরু করেন। তাদের উদ্দেশ্য, বৃদ্ধা মানুষটি তাঁর স্বজনদের ফিরে পাক।

তবে এই বৃদ্ধাকে তাঁর স্বজনরা ঘর থেকে বের করে দিয়েছে, না স্বেচ্ছায় ঘর ছেড়েছেন, নাকি পথ ভুল করে এসেছেন তা আদৌও জানা যায়নি। মোহাম্মদ নিয়ামত উল্লাহ বলেন, বৃদ্ধ মহিলাটি গত দুদিন ধরে আমাদের বাড়িতে অবস্থান করছেন। প্রতিকূল পরিবেশের এই বিরূপ আবহাওয়ায় আশ্রয় না দিয়ে বয়স্ক বৃদ্ধাকে রাস্তায় বের করে দিতে বিবেকে বাঁধা দেয়। আর চলমান করোনাকালীন সময়ে আমাদের নিজেদের সংসারেই টানাপোড়া। এমতাবস্থায় এই বৃদ্ধ মহিলার সেবা-সূশ্রুষা ও ভরণপোষণের দায়িত্ব নেওয়াটা কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বড়দল (উঃ) ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম বলেন, আমি ইতিমধ্যেই আশ্রয়দাতাকে বলে দিয়েছি যে আগামীকাল ওই বৃদ্ধ মহিলাকে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসতে। আমরা তাকে সার্বিক সহযোগিতা করবো।

তাহিরপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ তফাদার বলেন, অসহায় বৃদ্ধ মহিলাকে যারা আশ্রয় দিয়েছেন, তারা মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন। আমি শীঘ্রই আমি তাদের সাথে যোগাযোগ করবো এবং আমার বিট অফিসারদের সহযোগিতায় বৃদ্ধ মহিলার যথাযথ ঠিকানা খুঁজে দিতে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ