শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৪৭ অপরাহ্ন

ত্রিশালে বালু উত্তোলনের অভিযোগে কারাদন্ড

মমিনুল ইসলাম মমিন, ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

ময়মনসিংহ ত্রিশালে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় ৩ জনকে দোষী সাব্যস্ত করে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানাযায়, উপজেলার কানিহারী ইউনিয়নের ব্রহ্মপুত্র নদীর তীরবর্তী জিলকী পুরাতন গুদারাঘাট নামক স্থানে ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন কালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এসময় অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনকালে তিন জনকে আটক করা হয়। বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর ৫ (১) ধারা লঙ্ঘনের অপরাধ যা মোবাইল কোর্ট আইন ২০০৯ এর অধীন ও অপরাধটি সামনে সংঘটিত হওয়ায় মোবাইল কোর্ট আইন ২০০৯ এর ৬(১) ধারা অনুসারে তাদের আটক করা হয়। আটকৃতরা হলেন জিলকী গ্রামের আজিজুর রহমানরে ছেলে আনোয়ার হোসাইন আরিফ (৩০), কালিরবাজার গ্রামের হোসেন খানের ছেলে বিল্লাল (২৮) ও জিলকী গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে সুজন (২৫) কে ব্রহ্মপুত্র নদীর পাড় হতে বালু উত্তোলন করার সময় সঙ্গীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ত্রিশাল থানা পুলিশের সহায়তায় হাতে-নাতে আটক করা হয়।

আটককৃত আনোয়ার হোসেন আরিফ, বিল্লাল ও সুজন তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ স্বীকার করে আরো জানান, ব্রহ্মপুত্র নদীর তীরবর্তী এলাকা হতে কামরুল ইসলামের নির্দেশে বালু কর্তন করে ড্রাম ট্রাকের মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করার জন্য কাজ করেন তারা।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচলনা করে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ তরিকুল ইসলাম জানান, তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় মোবাইল কোর্ট আইন ২০০৯ এর ৭(২) ধারা অভিযুক্তদের বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর ৫(১) ধারার বিধানমতে দোষী সাব্যস্ত করে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে এ অভিযান পরিচালনা অব্যহত থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ