বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
তাহিরপুরে অজ্ঞাত বৃদ্ধার ঠিকানা খুঁজছে এলাকাবাসী নিবন্ধন না থাকায় সাভারে বিভিন্ন হোটেল ও রেস্টুরেন্টকে ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা আশুলিয়ায় স্কুল পড়ুয়া কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা, সাভারে ২ জনের লাশ উদ্ধার পাটগ্রামে ভারতীয় শাড়ী ও কসমেটিক্স সহ আটক ২ নৌকার মাঝি মোহাম্মদ আলী, ধানের শীষ হাতে সাইফুল আলম বরগুনায় গণপূর্ত বিভাগের জলাশয় অবৈধভাবে দখল করে মাছ চাষ বগুড়ায় ভাতিজার লাঠির আঘাতে চাচার মৃত্যু ঘোড়াঘাটে বালু বোঝাই ট্রাকে ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার ২ সাভারে টায়ার পুড়িয়ে পরিবেশ দূষণ, ৫টি কারখানা গুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত মন্ত্রণালয়ের কোন কর্মকর্তা কর্মচারী দুর্নীতি করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: অতিরিক্ত সচিব

দীর্ঘদিনের প্রথা ভেঙ্গে এবার রাজবাড়ী পতিতাপল্লীর তৃতীয় যৌন কর্মীর জানাজা সম্পন্ন !

কবির হোসেন, রাজবাড়ী

দীর্ঘদিনের প্রথা ভেঙে এবার তৃতীয়বারের মতো দেশের বৃহত্তম দৌলতদিয়া পতিতা পল্লির যৌনকর্মী পারভীন বেগমের (৬৫) জানাজা সম্পন্ন করলেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশিকুর রহমান।

২২শে ফেব্রুয়ারি শনিবার বেলা ২টায় জানাজা শেষে দৌলতদিয়া যৌনপল্লি সংলগ্ন করবস্হানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়। বার্ধক্যজনিত কারনের তিনি শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে পল্লির মধ্যে মারা যান। তবে এবারও দ্বিতীয় যৌনকর্মী রিনা বেগমের জানাজা পড়ানো গোয়ালন্দ থানা মসজিদের সেই ইমাম আবু বক্কর সিদ্দিকি- ই এই যৌনকর্মীর জানাজা পড়ান।

এর আগে প্রথম যৌনকর্মী হামিদা বেগমের জানাজা পড়ানো দৌলতদিয়া রেলস্টেশন মসজিদের ইমাম গোলাম মোস্তফা দেশ-বিদেশ আলোচনা-সমালোচনা এবং স্হানীয়দের সামাজিক প্রতিবন্ধকতার কারনে আর কোন যৌনকর্মীর জানাজা না পড়ানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন এই ইমাম। তারই প্রেক্ষিতে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসির অনুরোধে থানা মসজিদের ইমাম আবু বক্কর সিদ্দিকি পরপর দুজন যৌনকর্মীর জানাজা পড়ান। জানাজায় উপস্হিত ছিলেন এএসপি (সার্কেল) সদর মো: শরিফ উজ-জামান, গোয়ালন্দ ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল তায়াবির, দৌলতদিয়া ইউপি সদস্য জলিল ফকিরসহ স্হানীয় প্রায় শতাধিক মুসল্লি।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে যৌনকর্মীরা মারা গেলে তাদের নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হতো অথবা মাটির নিচে পুতে রাখা হতো। বিষষটি গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশিকুর রহমানের নজরে আসলে তিনি সব বাধা পেরিয়ে গত ৬ ফেব্রুয়ারি হামিদা বেগমের প্রথম জানাজা সম্পন্ন করান। এরপর ২০ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় জানাজা যৌনকর্মী রিনা বেগম ও সর্বশেষ যৌনকর্মী পারভীনের জানাজার পড়ানোর সব ব্যবস্হা গ্রহণ করেন।

একজন পুলিশ কর্মকর্তার সমাজ পরিবর্তনের মহতি এই উদ্যেগ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন গণমাধ্যম ফলাও করে প্রচার করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সব জায়গায় প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।যৌন কর্মীর মৃত লাশের দেহ নিজে বহন করে কবরে নিয়ে যান ঐ ওসি ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ