মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:২০ পূর্বাহ্ন

নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই মাছ ধরার হিড়িক, বাধা দেওয়ায় হামলা!

হাবিবুর রহমান, সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জের একদিকে ভয়াল মরণব্যাধি করোনা আতংক অন্যদিকে মাছ মারার হিরিক পড়েছে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার ফেনারবাঁক ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের পাশের দৌলতা নদীতে। আর এ মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে রাজাপুর গ্রামে হামলার অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, শনিবার দুপুরে একদল লোক পলো নিয়ে রাজাপুর গ্রামের সামনে নদীতে মাছ ধরতে আসে। এসময় নদীতে পানি কম থাকায় পানি ঘোলা হলে দৈনন্দিন কাজে অসুবিধার কথা বলে গ্রামবাসী তাদের মাছ না ধরার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু স্থানীয় লোকজন, জনপ্রতিনিধি ও গ্রামবাসীর বাধা উপেক্ষা করে পলো নিয়ে মাছ ধরতে নেমে পড়ে নদীতে। আর এরই জেরধরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে পলো বাওয়া লোকজন সঙ্গবদ্ধ হয়ে তারা গ্রামের বাড়ি ঘরে হামলা চালায়। খবর পেয়ে জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রিয়াংকা পাল, সেনাবাহিনী ও পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

গ্রামবাসী জানান, দৌলতা নদীতে পলো দিয়ে মাছ ধরতে আসলে আমাদের গ্রামের ব্যবহারের একমাত্র পানির ব্যবস্থা এ নদী। আর এতে পানি কম। পানি নষ্ট হয়ে যাবে ক্রমে আমরা বাধা দিলেও কাজ হয়নি, সংগবদ্ধ হয়ে ওরা গ্রামে হামলা চালায় এতে ব্যপক ক্ষতি হয়।

এ ব্যপারে জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সাইফুল আলম জানান, মাছ মারার সংবাদ পেয়ে আমি পুলিশ পাঠিয়ে তাদের। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাইনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা পাল যুগান্তরকে জানান, দৌলতা নদীতে পলো দিয়ে এক পক্ষ মাছ ধরতে গেলে অন্য পক্ষ বাধা দিয়েছে। এতে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। আমি সেনা বাহিনী ও পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর ওরা ছত্রভঙ্গ হয়ে গেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ