রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:০২ অপরাহ্ন

বগুড়ায় ডোবায় গৃহবধূর লাশ, স্বামী আটক
সুব্রত ঘোষ, নাজমুল হাসান, বগুড়া / ২০২ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ডোবা থেকে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের কৈগাড়ী গ্রাম থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়। মারা যাওয়া ওই গৃহবধূর নাম ফাতেমা খাতুন(২০)।

তিনি ওই গ্রামের রাজমিস্ত্রীর কাজ করে আল আমিনের(২২) স্ত্রী। তাদের দুই বছর আগে বিয়ে হয় এবং সংসারে ১০ মাস বয়সের এক ছেলে সন্তান আছে।

এ ঘটনা হত্যাকান্ড সন্দেহে স্বামী আল আমিনকে আটক করেছে পুলিশ।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি শওকত কবীর জানান, বুধবার সকালে গ্রামের লোকজন বাড়ির পাশে ডোবার পানিতে ফাতেমার লাশ দেখতে পায়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে। নিহতের গলায় ফাঁস দেয়ার চিহ্ন রয়েছে।তিনি আরও জানান, নিহতের স্বামী আল-আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আটক করা হয়েছে। সেই সাথে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হবে।

জানা গেছে, দুই বছর আগে আল- আমিনের সাথে ফাতেমার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ১০ মাস বয়সী একটি ছেলে সন্তান রযেছে। আল-আমিন পেশায় রাজ মিস্ত্রীর সহকারী।

আটক আল-আমিন পুলিশকে জানায়, সম্প্রতিকালে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে তিনি কর্মহীন হয়ে পড়েন। মঙ্গলবার (৫ মে) বিকেলে ফাতেমা তার নানী শ্বাশুড়ির বাড়ি থেকে তিন কেজি চাল নিয়ে। স্বামী আল- আমিন জানতে পেরে স্ত্রীকে চড় থাপ্পড় মারে। রাতে আবারো তাদের মধ্যে ঝগড়া হয় ও মারপিটের ঘটে। পরে রাতের কোন এক সময় ফাতেমা ঘরে সন্তান রেখে নিখোঁজ হয়।

নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শওকত কবীর জানান, আটক আল-আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। নিহতের পরিবারের সদস্যদেরকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে রহস্য উদঘাটনের জন্য। নিহতের গলায় ফাসের চিহ্ন রয়েছে।তবে তিনি নিশ্চিত করে বলেন ফাতেমাকে গলায় ফাস দিয়ে হত্যা করে লাশ ডোবায় ফেলে রাখা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Shares