মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৮:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মাগুরায় ৮ দিন পর যুবকের মস্তকবিহীন লাশের মাথা ও পা উদ্ধার গাজীপুরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্কুল কলেজ খোলার জন্য মানববন্ধন। মাগুরায় পরিত্যক্ত পুকুরে মিললো যুবকের টুকরো টুকরো লাশ বশেমুরবিপ্রবিতে শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ, স্বেচ্ছায় অব্যহতি গাজীপুরে ভোগরা বাইপাসে স্ট্রোকে আম বিক্রেতার মৃত্যু গাজীপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় গার্মেন্টস শ্রমিকের মৃত্যু শেরপুরে নকল সোনার বারসহ ২ প্রতারক গ্রেফতার কাল থেকে ৭ দিনের জন্য কঠোর লকডাউন চাঁপাইনবাবগঞ্জে শরনখোলায় লোকালয় থেকে মৃত হরিন উদ্ধার! উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি/সম্পাদকের ১৯ তম মৃত্যু বার্ষীকি পালন করেন এমপি সবুজ

বগুড়ায় ৪ পুলিশসহ করোনায় আক্রান্ত ১১

নাজমুল হাসান, সুব্রত ঘোষ, বগুড়া

বগুড়ায় ৪ পুলিশ সদস্য এবং শহরের জলেশ্বরীতলা এলাকার এক ব্যবসায়ী পরিবারের ৭ সদস্যসহ নতুন করে আরও ১১জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ৯ টা ৩০ মিনিটের দিকে ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এ তথ্য জানিয়েছেন। এ নিয়ে গত ১ এপ্রিল থেকে বগুড়ায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অর্ধশত ছাড়ালো।

মঙ্গলবার বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের পিসিআর ল্যাবে এ জেলার ১৭৬টিসহ মোট ১৮৮ নমুনা পরীক্ষা করা হয়। অার ১২টি সিরাজগঞ্জের নমুনা ছিল।১৭৬ টি নমুনার মধ্য ১১ টি পজিটিভ আসে। এর মধ্যে ৯জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, বগুড়া পুলিশ লাইনে কর্মরত পুলিশের যে সদস্যরা আক্রান্ত হয়েছেন তারা বাইরে যাননি কখনো । তাদের মধ্যে একজন সহকারি উপ-পরিদর্শক পদমর্যাদার, বয়স ৫৬ বছর। আর বাকি ৩জন কনস্টেবল। তাদের বয়স যথাক্রমে ৫৫, ৫৬ ও ২৭। গত ১১ মে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী বগুড়ায় এ পর্যন্ত ২ নারী কনস্টেবলসহ মোট ৯ পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে আহসান হাবিব নামে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে (ডিএমপি) কর্মরত এক কনস্টেবল সুস্থ হয়ে বগুড়ার আদমদীঘিতে তার বাড়ি ফিরে গেছেন।

ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, শহরের জলেশ্বরীতলা এলাকার এক ব্যবসায়ী পরিবারের যে ৭জন আক্রান্ত হয়েছেন তারা সবাই ঢাকা থেকে আসেন । ৭জনের মধ্যে ৩জন পুরুষ ও ৪জন নারী। গত ৮ মে তারা ঢাকা থেকে বগুড়া ফেরেন। এরপর ১১ মে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে।

বগুড়ায় পুলিশের মিডিয়া বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, পুলিশ লাইনে ইতিপূর্বে করোনায় আক্রান্ত এক কনস্টেবলের সঙ্গে একই রুমে থাকার কারণে নতুন করে ৪জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদেরকে পুলিশ লাইনে কোয়ারেন্টাইনে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হবে।

বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, জলেশ্বরীতলা একই পরিবারের ৭জনকে তাদের বাড়িতেই লকডাউনে রাখা হয়েছে। সেখানেই তাদেরকে চিকিৎসা দেওয়া হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বগুড়ায় মার্কেট খুলে দেওয়ার কারণে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে কিনা সেটা আরও কয়েকদিন পর বোঝা যাবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ

Spoken English কোর্স