শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১১:৫৭ পূর্বাহ্ন

বরগুনায় গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী গ্রেপ্তার

মো.মিজানুর রহমান নাদিম, বরগুনা প্রতিনিধি

বরগুনার তালতলীতে ৭ বছরের মেয়েকে গাছের সাথে বেধেঁ রেখে মাকে গণ ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেপ্তার করছে তালতলী থানা পুলিশ

আজ বুধবার (৬এপ্রিল) সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের নিদ্রারচর এলাকায় পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে গণধর্ষণ মামলার ১নং আসামী মো.এমাদুল হাং-(৩২) কে গ্রেপ্তার করে।উপজেলার নলবুনিয়া
গ্রামের সোহরাব হাওলাদারের ছেলে।

তালতলী থানার (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা জনাব মো.কামরুজ্জামান মিয়া বলেন,গণধর্ষন মামলার আসামীদের ধরার জন্য পুলিশের একটি টিমতৎপরতা চালায় আজকে সকালে অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।মামলার নিয়ম অনুযায়ী জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।বাকী ৩নং আসামী মো.সোহাগ ও ৫নং আসামী মো.ছাইদুরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলতেছে।

এর আগে মামলার ৪নং আসামী নজরুল গাজী (৩০) কে নলবুনিয়া এলাকা থেকে আটক করা হয়। উল্লেখ্য গত ২৩ এপ্রিল জনৈক গৃহবধূ তার কন্যা সন্তানকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি পিরোজপুর জেলাধীন মঠবাড়িয়া উপজেলার শাপলেজা গ্রাম থেকে পটুয়াখালী কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর গ্রামে খালাবাড়ি রওনা দেয়। শ্বশুর বাড়ি থেকে পাথরঘাটা খেয়া পাড় হয়ে তালতলী শুভসন্ধ্যা ঘাটে পৌছায়। সেখান থেকে ভাড়ায় চলিত মোটরসাইকেলে নিশানবাড়িয়া খেয়াঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা করে। মোটরসাইকেল ড্রাইভার অভিযুক্ত জহুরুল আকন তাদেরকে নিয়ে নির্জন জঙ্গলে দিকে যায়।

সেখানে নিয়ে এলাকার ৪/৫ জন বখাটে মিলে সন্তানকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে মাকে গণধর্ষণ করে। এ সংক্রান্তে ভিকটিম গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে ১ লা মে তালতলী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। তবে মামলার মূল আসামি জহিরুলকে (২রা মে) শনিবার বরগুনার দক্ষিণ বালিয়াতলি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে (র‍্যাব ৮) এবং র‍্যাবের কাছে ধর্ষণের কথা শিকার করেন।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ