বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ন

বরগুনায় ছেলেকে মাদক বিক্রীতে রাজি করাতে না পেরে মা-বাবাকে কুপিছে জখম

বরগুনা প্রতিনিধি

বরগুনার তালতলীতে ছেলেকে ইয়াবা বিক্রীতে রাজি না করাতে পেরে মা-বাবাকে হারুনসহ তার সহযোগিরা কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার(২৭মে)বেলা ১১টার দিকে তালতলী সাংবাদিক ফোরামের এসে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগি মিরাজ।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের মহারাজ পহলানের ছেলে মিরাজকে পাশবর্তী হারুন,নুর মিয়া ও ছত্তার মল্লিক ইয়াবা বিক্রীর প্রস্তাব দেন। এতে রাজি হয়নি মিরাজ । এর কয়েক মাস পর হারুন ও নুর মিয়া ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েন।

পরে জামিনে ছাড়া পেয়ে ফের আমাকে ইয়াবা বিক্রী করতে জোর করেন এতেও রাজি হইনি আমি। এরই জের ধরে গত ১৬ মে রাত ৭টার দিকে আমার বাড়িতে হারুন,নুরু মিয়া ও তার ছেলে আমাদের বাড়িতে এসে আমাকে না পেয়ে আমার মা-বাবাকে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করে বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত স্থানে ফেরে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি দেখে বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এঘটনায় তালতলী থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করা হয়েছে।এদিকে আমি মাদক ব্যবসায়ের সাথে জরিত না হতে চাইলে বিবাদীরা আমাকে জীবনাশের হুমকি দেয়। তাই কোনো উপায় না পেয়ে সংবাদকর্মী ভাইদের মাধ্যেমে প্রশাসনের নজরে আনার জন্য সংবাদ সম্মেলন করেছি।

এবিষয়ে হারুন বলেন আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগে সংবাদসস্মেলন করছে তার সম্পূর্ন মিথ্যা। তবে তারা নিজেরা মরামারি করছে সে জন্য আমাকে দোষরোপ করতেছে।মারামারির বিষয়ে আমি অনেক বার নিষেধ করছি তাদেরকে।

এবিষয়ে তালতলী থানার ভারপ্রার্প্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জমান মিয়া বলেন,লিখিত কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ

Spoken English কোর্স