শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন

ভারতে পাচার হওয়ার পাঁচমাস পর কিশোরী উদ্ধার

মাসুম বিল্লাহ শরনখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

বাগেরহাটের শরনখোলা থেকে ভারতে পাচার হওয়ার পাঁচ মাস পর এক কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে। ১২ জানুয়ারী (মঙ্গলবার) দুপুরে শরণখোলা থানা পুলিশ ওই কিশোরীকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন। এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে পাচারকারী চক্রের মুল হোতার বিরুদ্ধে শরনখোলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

শরণখোলা থানার মামলা সূত্রে জানা যায়, মোটা অংকের বেতনে ভালো চাকুরীর প্রলোভন দিয়ে শরণখোলা উপজেলার মঠেরপাড় গ্রামের বাসিন্দা মোঃ তৈয়ব আলী হাওলাদারের স্ত্রী মোসাঃ হাসি বেগম ২০২০ সালের ৪ আগষ্ট উপজেলার উত্তর তাফালবাড়ী গ্রামের বসিন্দা মোঃ জাকারিয়া মোল্লার কন্যা রাবেয়া আকতার (১৬) কে ভারতের বেঙ্গালোরে নিয়ে বিক্রি করে দেন। বিষয়টি টের পেয়ে রাবেয়া কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে ভারতের মারোথারি থানাকে বিস্তারিত জানায়। বেঙ্গালোর পুলিশ কিশোরীকে শেল্টার হোমে রেখে পাচারকারী হাসি বেগমকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায়।

বেঙ্গালোর পুলিশ শরণখোলা থানায় যোগাযোগ করে কিশোরীর পরিচয় নিশ্চিত হয় এবং যশোরের আন্তর্জাতিক মানবপাচার প্রতিরোধ সংস্থা জাষ্টিস এন্ড কেয়ারের সহায়তায় চলতি বছরের ১ জানুয়ারী ভারতীয় পুলিশ বেনাপোল বর্ডারে বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন পুলিশ ও এনজিও জাষ্টিস এন্ড কেয়ারের প্রতিনিধিদের কাছে রাবেয়াকে হস্তান্তর করেন। ১০ জানুয়ারী রাবেয়াকে শরণখোলা থানায় আনা হয় এবং তার পিতা জাকারিয়া মোল্লা বাদী হয়ে হাসি বেগমের বিরুদ্ধে শরণখোলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ সাইদুর রহমান জানান, যথাযথ আইনী প্রক্রিয়া শেষে ১২ জানুয়ারী (মঙ্গলবার) দুপুরে জাষ্টিস এন্ড কেয়ারের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার এবিএম মহিদ হোসেনের উপস্থিতিতে রাবেয়াকে তার পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ