সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

মঠবাড়িয়ায় দৃশ্যমান আদালত খুলে দেওয়ার দাবিতে আইনজীবীদের মানববন্ধন
মোঃ রুম্মান হাওলাদার, মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি / ২৮৫ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় ভার্চুয়াল (অনলাইন পদ্ধতির) কোর্ট বন্ধ রেখে প্রকৃত ও দৃশ্যমান আদালতের কার্যক্রম শুরু করার দাবিতে মানববন্ধন করেছে উপজেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আইনজীবীরা।

আজ মঙ্গলবার (৭ জুলাই) সকাল ১০ টার দিকে আদালত ভবনের সম্মুখ সড়কে জেলা আইনজীবী সমিতির উদ্যোগে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে শতাধিক আইনজীবী ও আইনপেশার সাথে সংযুক্ত ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ করেন।

উপজেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান মুন্সীর সভাপতিত্বে এ মানববন্ধন পরিচালিত হয়।

এসময় জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক নেতা এডভোকেট দিলীপ কুমার পাইক বলেন, “বাংলাদেশের অন্য সকল অফিস কোভিট -১৯ এর জন্য সীমিত আকারে খুললেও আদালত এখন পর্যন্ত সেভাবে খুলে নাই। আমাদের একটি দাবি ভার্চুয়াল আদালত বন্ধ করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রকৃত দৃশ্যমান আদালত খুলে দেওয়া হোক।”

সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম বলেন, “বাংলাদেশের যত আইনজীবী আছে তাদের মধ্যে প্রায় ৯৫ শতাংশ আইনজীবী অস্বচ্ছলতার জীবন যাপন করে। অর্থাৎ দৈনিক প্র্যাকটিসের ভিত্তিতে তাদের পারিবারিক জীবনযাপন পরিচালনা করে। আজকে প্রায় চার মাস ধরে আদালত বন্ধ থাকার কারণে এসব আইনজীবীরা মানবেতর জীবন যাপন করছে। আমরা কারো কাছে বলতেও পারিনা যেতেও পারি না। আমাদের সকলের দাবি অন্যান্য অফিসের মত আদালতকেও নিয়মিত করা হোক। এতে একদিকে যেরকম অপরাধীরা পালিয়ে বেড়িয়ে অপরাধ সংঘটিত করতে পারবে না অপরদিকে আইনজীবীদেরও আর্থিক স্বচ্ছলতার পথ উন্মুক্ত হবে।”

আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান মুন্সীর বলেন, “আর নয় ভার্চুয়াল আমরা চাই একচুয়াল কোর্ট। সারেন্ডার, শুনানি উড্রোয়াল এ সমস্ত জিনিসগুলোর জন্য দৃশ্যমান আদালতের প্রয়োজন। এগুলো না হলে মানুষ ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়। দৃশ্যমান ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা ও মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিতে ভার্চুয়াল আদালতের কার্যক্রম বন্ধ করে প্রকৃত ও স্বাভাবিক আদালতের কার্যক্রম খোলার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সরকারি এপিপি অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান, উপজেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট মোফাজ্জল হোসেন মিঠু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জামাল হোসেন, প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Shares