বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৮:৩৮ পূর্বাহ্ন

রুপচাঁদা বলে অবাধে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ পীরানহা মাছ

মোঃ রফিকুল ইসলাম, মনোহরদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি

পীরানহা একটি ভয়ানক মাছ। যা বাংলাদেশ সহ সারাবিশ্বেই মানুষ খেঁকো হিসেবে পরিচিত। মূলত এটি আমাজন নদীর মাছ। এ মাছ যেখানে চাষ হয় সেখানে কোন মানুষ পড়ে মারা গেলে আস্ত মানুষটাকে খেয়ে সাবার করে ফেলে এই মাছটি। এর ভয়ানক কিছু দাঁত রয়েছে।

এর ক্ষতিকর দিক বিবেচনা করে সারাবিশ্বেই এর প্রজনন,বিপনন ও প্রদর্শন নিষিদ্ধ ঘোষনা করা হয়েছে।বাংলাদেশ মৎস্য অধিদপ্তর ও এ মাছ চাষ, বিপনন ও প্রদর্শনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ২০০৭ সালে জাতীয় সংসদে এ ব্যাপারে বিল উত্থাপন করা হয়েছে।

কিন্তু একশ্রেণীর মুনাফাখোরদের যোগসাজশে এ মাছ মনোহরদী উপজেলার ঐতিহ্যবাহী হাতিরদিয়া বাজারে অবাধে বিক্রি হচ্ছে।সাধারণ মানুষের কাছে রুপচাঁদা বলে বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ১২০-১৬০ টাকা পর্যন্ত।

হাতিরদিয়ার মত এমন ঐতিহাসিক বাজারে কি করে নিষিদ্ধ এ মাছ বিক্রি করেন জানতে চাইলে, নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক জেলে বলেন, এটা আমরা সবসময় বিক্রি করিনা শুধুমাত্র রবিবার দিন বিক্রি করি।

কিন্তু স্থানীয়দের অভিযোগ জেলেরা হরহামেশাই এ মাছ বিক্রি করে রুপচাঁদা বলে।আমরা সাধারণ মানুষ না বুঝে এতদিন এই মানুষ খেঁকো বিষাক্ত মাছ খেয়েছি।

উপজেলা মৎস্য অফিস কিংবা প্রশাসন এ ব্যাপারে যদি কঠোর নজরদারী কিংবা সচেতনতা বৃদ্ধি না করে, তাহলে মানুষ খেঁকো বিষাক্ত এ পীরানহা মাছের বানিজ্যিক উৎপাদন কিংবা বিপনন বন্ধ করা সম্ভবপর হবে না।।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ

Spoken English কোর্স

Shares