মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৪:০৭ অপরাহ্ন

লামায় হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে অজ্ঞাত রোগাক্রান্ত ৩৩ জনকে ভর্তি

বান্দরবান প্রতিনিধি

বান্দরবানের লামা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুর্গম পুরাতন লাইল্যা মুরুং পাড়ায় অজ্ঞাত রোগে আক্তান্ত ৩৩ জনকে লামা হাসপাতালে আনা হয়েছে। অসুস্থ ৩৩ জনের মধ্যো শিশু, নারী ও পুরুষ রয়েছ। তাদের হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। সেনাবাহিনীর একটি টিম ও লামা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেনসহ স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় সোমবার (১৬ মার্চ) সকালে টলি ট্রাক্টর দিয়ে অসুস্থ রোগীদের হাসপাতালে আনা হয়।

লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদুল হক জানান, প্রাথমিক ভাবে রোগের আলামত দেখে মনে হচ্ছে রোগটি হাম। তারপরেও আমরা নিশ্চিত হতে আক্রান্তদের কাছ থেকে নমুনা রক্ত সংগ্রহ করে ঢাকায় স্বাস্থ্য বিভাগের গবেষনাগারে পাঠাব। গতকাল থেকে আমাদের চিকিৎসাটিম সেখানে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে। আমার পুরো মেডিকেল টিম আক্রান্তদের সেবা দিচ্ছে। হাসপাতালে ২টি ওয়ার্ডকে আইসোলেশন সেন্টার করা হয়েছে। ৩৩ জন রোগীকে সেখানে আলাদা করে চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে।

পুরাতন লাইল্যা মুরুং পাড়ার পাড়া প্রধান লাতুং কারবারী বলেন, গত ১ মাস ধরে এই রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যে দুতিয়া ম্রো (৮) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। পাড়ার লোকজন প্রায় সকলে অসুস্থ।

লামা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন বলেন, আমরা খবর পেয়ে সোমবার সকালে ট্রাক্টর নিয়ে তাদের লামা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসি। তিনি আরো জানান,আমর ইউনিয়ন পরিষদ হতে তাদের সকল চিকিৎসা ও খাবারের খরচ বহন করব।

এদিকে রোগীদের হাসপাতালে আনা হলে লামা উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি, লামা পৌরসভার মেয়র ও লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। তাদের সবকিছুর খোঁজখবর নেন।

প্রসঙ্গত, লামা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুর্গমে অবস্থিত পুরাতন লাইল্যা মুরুং পাড়ার ৮টি পরিবারের প্রায় ৭০ জন শিশু, নারী ও পুরুষ সবাই অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে। ইতিমধ্যে গত শুক্রবার অজানা রোগে আক্রান্ত হয়ে দুতিয়া ম্রো (৮) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ