শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:২৪ অপরাহ্ন

শ্যামনগরে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী আটক

আনিছুর রহমান মিলন, শ্যামনগর সাতক্ষীরা

শ্যামনগর থানায় ৪২নং মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত ১নং আসামী আজাদ গাজী (৫৬)কে পুলিশ আটক করেছে। সে খ্যাগড়াঘাট গ্রামের মৃত জোনাব আলী গাজীর পুত্র।

সূত্রে প্রকাশ, ৩০ এপ্রিল রাত্র আনুঃ ৮টার দিকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস,আই আব্দুর রাজ্জাক সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে আজাদ গাজীকে তার বাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। আজাদ গাজী জানান, তার বিরুদ্ধে মামলা থাকায় তাকে গ্রেফতার করে থানায় লকআপে ঢুকানোর কিছুক্ষণের মধ্যে অচেতন হয়ে পড়েন, পরে জ্ঞান ফিরে তিনি শ্যামনগর হাসপাতালে শয়নরত দেখেন, তবে বেশ কিছু দিন পূর্বে তিনি হার্টের সমস্যায় চিকিৎসা সেবা নিয়ে ছিলেন, তিনি এখন অনেকটা সুস্থতারদাবী করেন।

মামলার বাদী খ্যাগড়াঘাট গ্রামের মৃতঃ শ্যামালী গাজীর পুত্র শফিউল আলম জানান, আজাদ গাজী সহ তার অপর ২ ভাই শহিদ গাজী,সেলিম গাজী ও অজ্ঞাতনামা ৩/৪জনের বিরুদ্ধে বেআইনী জনতাবদ্ধে অনাধিকারে সম্পত্তি ও ঘেরের বাসায় প্রবেশ করতঃ খুন করার উদ্দেশ্যে মারপিট করে সাধারণ ও গুরুতর জখম,চুরি ও ভয়ভীতি প্রদর্শের অপরাধে মামলা হলে তিনি আত্মগোপনে ছিলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজাদ গাজী কে পুলিশ আটক করায় তিনি মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে অসুস্থতার দৌহাই দিয়ে ছাড়া পেতে অপচেষ্টা করছেন।এস,আই আব্দুর রাজ্জাক জানান, তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসলেই আজাদ গাজী তার বুকে হাত দিয়ে বলেন, স্যার আমি হার্টের রোগী, আমার বুক ব্যথ্যা করছে, পরবর্তীতে তাকে দ্রুত শ্যামনগর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে হার্টের রোগী ও অসুস্থতার কথা নিশ্চিত করলে ইউপি চেয়ারম্যানের জিম্মায় চিকিৎসার জন্য দেওয়া হয়।

স্থানীয় ঈশ্বরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান জি, এম, শোকর আলী জানান,যথাযথ প্রক্রিয়ায় আজাদ গাজী কে তার জিম্মায় চিকিৎসার জন্য দেওয়ায় তিনি শ্যামনগর হাসপাতালে তাকে ভর্তি করে সর্বদা খোঁজ খবর রাখছেন এবং তিনি অসুস্থ। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনি শ্যামনগর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ