শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন

সাভারে নীলা রায় হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা মিজানসহ ২ জন আটক

মোঃ শামীম হোসেন, সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি

সাভারে আলোচিত স্কুল ছাত্রী নীলা রায় হত্যা কান্ডের ঘটনায় প্রধান আসামী কিশোর গ্যাং সদস্য মিজানুর রহমান চৌধুরীকে (২১) আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে সাভারের রাজফুলবাড়ীয়া এলাকায় কর্নেল ব্রিক ফিল্ডের ভিতর থেকে মিজান ও তার সহযোগী সাকিব (২০) এবং জয়কে (২১) আটক করে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

এসময় তাদের কাছ থাকা একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়। মিজানের সহযোগী দুইজনের বাড়ী ব্যাক কলোনী এলাকায়।
এর আগে বখাটে মিজানের মা ও বাবাকে আটক করে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মানিকগঞ্জ জেলার চারিগ্রাম এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আবদুর রহমান (৬০) ও নাজমুন নাহার সিদ্দিকী (৫০) ।

নাজমুন নাহার সিদ্দিকী ও আবদুর রহমান সাভার পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের এ- ৭৪/২ ব্যাংক কলোনীর সাইদুল আলমের বাসায় ভাড়া থাকতেন।

এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর মানিকগঞ্জের আরিচা থেকে সেলিম পালোয়ান নামে মিজানুর রহমান চৌধুরীর এক সহযোগীকে আটক করে পুলিশ।

এবিষয়ে সাভার মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিতিত্বে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে সাভারে আলোচিত স্কুল ছাত্রী নিলা রায়কে হত্যার ঘটনায় মুল আসামী মিজানুর রহমানকে সেখান থেকে আটক করে সাভার মডেল থানা পুলিশ। এসময় পুলিশ তার কাছ থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত একটি ছুরি উদ্ধার করেছে।

সেখানে মাদক সেবন অবস্থায় তাকে আটক করা হয়। আটক হত্যাকারী বর্তমানে সাভার মডেল থানা পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। এ হত্যা কান্ডের ঘটনায় এ পর্যন্ত ছয় জন আসামীকে আটক করা হলো। শনিবার সকালে মিজানকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হবে। পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, শনিবার সকাল ১১টায় সাভার মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলন করা হবে এ হত্যাকান্ড নিয়ে।

উল্লেখ্য, গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে হাসপাতালে যাবার সময় ভাইয়ের সামনে থেকে স্থানীয় অ্যাসেড স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী নীলা রায়কে (১৪) সাভারের পালপাড়া এলাকায় তুলে নিয়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে বখাটে মিজান। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে হত্যা করে মিজান বলে অভিযোগ করেন নিহতের বাবা মা ।

নিহত নিলা মানিকগঞ্জ জেলার বালিরটেক এলাকার নারায়ন রায়ের মেয়ে। সাভার পৌর এলাকার কাজী মোকমা পাড়া এলাকার একটি ভাড়া বাড়ীতে পরিবারের সাথে থাকত সে। পরে নিহতের বাবা মিজানুর রহমান মিজানকে প্রধান আসামী করে আরও কয়েক জনের নাম উল্লেখ করে সাভার মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ