সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৩৭ পূর্বাহ্ন

সিংগাইরের জামশায় ফোন দিলেই বাসায় পৌঁছে যাবে বন্ধু যুব কল্যাণ সংস্থার ত্রাণ

মিলন মাহমুদ, মানিকগঞ্জ

সিংগাইরের জামশা ইউনিয়নে করোনায় কর্মহীন হয়ে পরা মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবারে খাদ্য সংকট হলে একটা ফোন দিলেই বাসায় চলে আসবে ত্রাণ। এমনই এক উদ্যোগ হাতে নিয়েছে একটি স্থানীয় সমাজ সেবা মূলক ছাত্র সংগঠন ‘বন্ধু যুব কল্যাণ সংস্থা’। স্থানীয় সমাজ সেবক এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে এ কার্যক্রমটি নিয়মিত ভাবে পরিচালিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধিত( নিবন্ধন নং-মানিক-০১৪) সংগঠনটি ২০১১ সালে মিলন মাহমুদের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠিত হয়ে সমাজের নানা প্রতিকূলতায় সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছে।

তারই ধারাবাহিকতায় করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে এলাকার যে সমস্ত মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবার কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে তাদের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে সংগঠনটি। যারা সরকারি ত্রাণ গ্রহনে লাইনে দাড়াতে লজ্জাবোধ করে তাদের জন্যই এ উদ্যোগ।
সংগঠনের সভাপতি জনাব জাহিদ হাসান একুশে জার্নালকে জানান-দেশের যে কোন ক্রান্তিকালীন সময়ে সরকারের পাশাপাশি আমরাও জনগণের পাশে আছি এবং থাকবো।করোনায় গ্রামের কেউ যাতে অভুক্ত না থাকে তা খেয়াল করা আমাদের সকলেরই নৈতিক দ্বায়িত্ব।
সাধারণ সম্পাদক বিদ্যুৎ মোল্লা জানান- সংগঠনের সকলের সহযোগিতায় সরকারি শৃঙ্খলা মেনেই আমরা ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছি এবং এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম জানান- প্রতিটি পরিবারে আমরা ৫ কেজি চাল,১ কেজি ডাল,১ কেজি তেল, পেঁয়াজ ১ কেজি,আলু ২ কেজি সহ প্রয়োজনীয় ঔষুধ বিতরণ করে যাচ্ছি।

এ কার্যক্রম পরিচালনায় বিশেষভাবে আর্থিক সহায়তা করছেন প্রবাসী সমাজ সেবক জনাব সাদ্দাম হাসান।  এ কার্যক্রমের ধারা অব্যাহত রাখতে সমাজের বিত্তবানদের প্রতি সহায়তার আবেদন জানান সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা জনাব মিলন মাহমুদ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ